বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo দিনাজপুর বিরামপুরে পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  Logo হবিগঞ্জে র‍্যাব -৯সিপিসি-১অভিযানে ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার Logo বিরামপুরে শীতকালীন সবজি ওঠায় দাম কমেছে স্বস্তি ফিরছে সাধারণ মানুষের! Logo সিরাজগঞ্জে বেলকুচিতে শিক্ষা অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ টাকা দিলেই ফাইল নড়ে Logo নবাবগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের শিকার স্ত্রী,স্বামী সুজন গ্রেফতার  Logo হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে জুয়া খেলার অপরাধে ৬ জনকে কারাদণ্ড ও অর্থদন্ড প্রদান!  Logo সিরাজগঞ্জে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে রিভালবার ও গুলিসহ ৬ ডাকাত আটক  Logo খানসামায় সম্প্রতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা  Logo নাটোরে শিমুলের নেতৃত্বে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তির শোভাযাত্রা। Logo দিনাজপুর বিরামপুরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা

দিনাজপুর বিরামপুরে বেড়ে চলছে অনুমোদন বিহীন বেকারি কারখানা!!

শফিকুল ইসলাম বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি / ৩২ বার পঠিত
আপডেট : সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১:২৮ অপরাহ্ণ

  • যত্রতত্র নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে গড়ে উঠেছে বেকারী কারখানা। বিশেষ করে উপজেলা গুলোর আশেপাশের প্রতিটি ইউনিয়নে কম বেশী ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে বেকারী কারখানা ।নামে বেনামে বেকারীগুলো গড়ে উঠেছে। বেকারীর পরিবেশ যে কেউ দেখলে চক্ষু কলাগাছে ওঠবে বলে ধারণা করা যায়। অধিকাংশ বেকারী গুলোতে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বেকারী পণ্য তৈরী হচ্ছে।

 

  • উৎপাদিত খাদ্যের মান প্রণয়ন এবং গুণগতমান ও পরিমাপ নিশ্চিতকরণে খুব বেশী ব্যবস্থা নিতে দেখা যায় না। উৎপাদিত খাবারে দেশের মান নিয়ন্ত্রণকারী একমাত্র প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) এর অনুমোদন এককালে থাকলেও নেই কারো কারো নবায়ন।চারচর দেখা মেলে না পরিবেশ অধিদপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

 

  • মিষ্টি বেকারী ও খাবার তৈরীর কারখানা স্থাপনায় পালনীয় ও সর্বসাধারণের অবগতির জন্য বিএসটিআই এর এক গাদা নির্দেশাবলি থাকলেও এর মধ্যে নূন্যতম বাস্তবায়ন দেখা মেলা ভার।কারখানা গুলো নিয়ম নীতি না মেনে স্যাঁতস্যাঁতে ভেজাল ও নিন্মমানের উপকরণ দিয়ে অবাধে তৈরী করছে বেকারী খাবার।

 

  • অভিযোগ রয়েছে বেকারী খাবার তৈরী করতে ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ, কেমিক্যাল ও নিন্মমানের পাম তেল ব্যবহার করা হচ্ছে। শ্রমিকরা বিশেষ পোশাক ছাড়া খালি পায়ে খাবার তৈরী করছেন। নোংরা ও অপরিস্কার কড়াইগুলোতে আটা ময়দা প্রক্রিয়াজাত করা হচ্ছে।ডালডা দিয়ে তৈরী করা ক্রিম রাখা পাত্রগুলোতে ঝাঁকে ঝাঁকে মাছি ভন ভন করছে।

 

  • উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ন তারিখ ছাড়াই বাহারি মোড়কে বনরুটি, পাউরুটি, কেক, বিস্কুটসহ বিভিন্ন ধরনের বেকারী ফাস্টফুড খাবার উৎপাদন ও বাজারজাত করা হচ্ছে।অধিকাংশ বেকারি মালিকের বিরুদ্ধে বিকল্প বেকারি মোড়কে নিন্মমানের খাদ্য সামগ্রী উৎপাদন করে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে পণ্য বাজারজাত করার অভিযোগ রয়েছে।

 

  • উপজেলার বিভিন্ন চায়ের স্টলে গিয়ে দেখা যায়, একাধিক পলি প্যাকে ঝুঁলছে পাউরুটি, ক্রীমরোল, কেক, পেটিস, সিঙ্গাড়াসহ অন্যান্য বেকারী খাবার। মোড়কের গায়ে উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণ লেখা থাকলেও কত তারিখে উৎপাদন হয়েছে বা মেয়াদ কবে শেষ হবে তার কোনো উল্লেখ নয় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ভেজাল কেমিক্যাল ও নিন্মমানের উপকরণ দিয়ে তৈরী করা এসব খাবার স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্বক ঝুঁকি।

 

  • কয়েক জন বেকারী শ্রমিক জানান, দিনের বেলায় তারা কোনো পণ্য উৎপাদন করেন না। ফজরের আগেই পণ্য উৎপাদন শেষ হয়ে যায়।

 

  • রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশের ঝাঁমেলা কম বলেই পণ্য উৎপাদন রাতেই শেষ করা হয়।বিএসটিআই আইন ২০১৮-এর খসড়া আইনে শাস্তি বাড়ানো হয়েছে।নতুন আইনের ২৭,২০,২৬,৩১,৩২ ধারায় সকল শর্ত ভঙ্গের দেখা মেলতে পারে কোথাও কোথাও এজন্য চাই সঠিক মনিটরিং।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর পড়ুন
Theme Customized By Theme Park BD