বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo মানিকের স্বপ্ন ছিল ব্যাংকার হওয়ার সংসারের হাল ধরতে গিয়ে হয়ে গেলেন উদ্যোক্তা  Logo বেগম খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবি বিএনপির! Logo কয়রার ঘুগরাকাটী ও বাগালীর একমাত্র সড়কটি হুমকির মুখে! Logo সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট, আহত ২ Logo চাটমোহর থানা ,পাবনার অভিযানে দুই জন মাদক ব্যবসায়ীকে মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট সহ গ্রেফতার। Logo হবিগঞ্জে গোপায়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানের বিজয় ঠেকাতে প্রশাসন কে ভুল তথ্য দিয়ে মিজবাহউল বারী কে গ্রেফতার! Logo বুকফাঁটা আর্তনাদ আর বোবা কান্নার শিকার গোলাম রাব্বানী !? Logo উল্লাপাড়ার নির্বাচনী সহিংসতায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু Logo নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকালে সিরাজগঞ্জে এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু Logo সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে চুল কর্তন স্বপদে বহাল শিক্ষক ফারহানা

খানসামায় রাস্তা নির্মাণের ৭ দিনেই উঠে যাচ্ছে ব্লু দেখার কেউ নাই!!!

ভুবন সেন, খানসামা উপজেলা প্রতিনিধিঃ / ৪৪ বার পঠিত
আপডেট : মঙ্গলবার, ১০ আগস্ট, ২০২১, ৭:২৬ অপরাহ্ণ

দিনাজপর জেলার খানসামা উপজেলায় যেমন উন্নয়ন হচ্ছে ঠিক সে রকম উন্নয়ন নাম করে রাস্তা তৈরিতে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ৪২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ এই রাস্তাটিতে পিচ ঢালাইয়ের ৭ দিনের মাথায় তা উঠে গেছে। ক্ষোভ প্রকাশ করে রাস্তা সংস্কারের দাবি জানান এলাকাবাসীরা ।

জানা যায়, উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নের যুগীপাড়ার মোড় হতে মাঝাপাড়ার যাওয়ার ৫১৫ মিটার রাস্তা পাকাকরণে ৪২ লাখ টাকা ব্যয়ে এই রাস্তার কাজটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের অধীনে ঠিকাদার হিসেবে কাজ করছেন আক্কাস আলী।

সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, পাকা রাস্তা নির্মাণে কাজ শুরুর পর থেকেই নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ ওঠে ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় লোকজন একাধিকবার ঐ ঠিকাদারকে জানালেও তিনি তাদের অভিযোগ গুলোকে গুরুত্ব না দিয়ে বর্ষার মধ্যে তাড়াহুড়ো করে কাজ শেষ করেন। কিন্তু কাজ শেষ হওয়ার ৬/৭ দিন পর হতেই ঐ রাস্তার পিচে হাত দিলেই তা উঠে যাচ্ছে। এছাড়াও রাস্তা দিয়ে হালকা যানবাহেেনর চাপেই উঠে যাচ্ছে রাস্তার পিচ। আবার সেই রাস্তায় ঠিক মত রোলার ব্যবহার না করায় রাস্তাটি বেশ কয়েকটি জায়গায় উঁচু-নিচু হয়েছে। ঐ এলাকার ধনেশ্বর রায় জানান, পিচ ঢালাইয়ের সময় সেখানে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে।

ঠিকাদারকে বারবার বলা সত্বেও কোন সাড়া দেয়নি। ফলে এখন পিচ উঠে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে ঠিকাদার আক্কাস আলীর মুঠোফোনে রাস্তায় অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ব্যস্ত আছি। পরে সাক্ষাৎ এ কথা হবে। দায়িত্বরত উপ-সহকারী প্রকৌশলী তাপস কুমার বাগচি বলেন, রাস্তাটি দ্রুত সময়ের মধ্যে সংস্কারের জন্য ঠিকাদারকে বলা হয়েছে।

রাস্তার কাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার ও পিচ উঠে যাওয়ার অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা প্রকৌশলী হারুন-অর-রশিদ জানান, বর্ষাকালে রাস্তার পিচের কাজ করার বিষেেয় নিষেধ করা সত্বেও ঠিকাদার জোরপূর্বক তা করেন। পুনরায় রাস্তা সংস্কার না করা পর্যন্ত কাজের বিল প্রদান করা হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

এ জাতীয় আরও খবর পড়ুন
Theme Customized By Bd It Host
%d bloggers like this:
%d bloggers like this: